আর্মেনিয়ায় প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবিতে ব্যাপক বিক্ষোভ

3

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ::
আজারবাইজানের সঙ্গে শান্তিচুক্তি স্বাক্ষরের দায়ে আর্মেনিয়ার প্রধানমন্ত্রী নিকোল পাশিনিয়ানের পদত্যাগের দাবিতে রাজপথে নেমেছে হাজারো মানুষ। গত মাসে চুক্তি স্বাক্ষরের পর থেকে এখন পর্যন্ত শনিবার সবচেয়ে বড় বিক্ষোভ আয়োজিত হয়। জার্মান সংবামাধ্যম ডয়চে ভেলে এ খবর জানিয়েছে।

আন্তর্জাতিকভাবে নাগোরনো-কারাবাখ আজারবাইজানের অংশ বলে স্বীকৃত। কিন্তু এলাকাটিতে বসবাস ছিল আর্মেনীয় জনগোষ্ঠীর মানুষদের। সেখানে নিজেদের বিচ্ছিন্নতাবাদী সরকারও প্রতিষ্ঠা করেছিল তারা। সম্প্রতি তারই জেরে ছয় সপ্তাহ ধরে যুদ্ধ হয়েছে সেখানে। শেষ পর্যন্ত যুদ্ধে আর্মেনিয়া পর্যুদস্ত হয়ে পড়লে রাশিয়ার হস্তক্ষেপে শান্তিচুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। ত্রিদেশীয় চুক্তিতে আর্মেনিয়া কারাবাখের তিনটি জেলা ছেড়ে দিতে সম্মত হয়। ইতোমধ্যে আজেরি বাহিনী আগদাম, লাচিন ও কালবাজারের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে।

শনিবার পাশিনিয়ানকে বিশ্বাসঘাতক উল্লেখ করে স্লোগান দেন বিক্ষোভকারীরা। রাজধানী ইয়েরেভানে ২০ হাজারের বেশি প্রতিবাদকারী বিক্ষোভে অংশ নেন। বিক্ষোভকারীদের অনেকেই প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবনের দিকে অগ্রসর হন।

আর্মেনিয়ার বিরোধীদলীয় নেতা আর্তুর ভ্যানেটসিয়ান বলেন, আর্মেনিয়ার প্রধানমন্ত্রীর পদ এখন রাজনৈতিক লাশের দখলে।

বিক্ষোভে অংশ নিয়েছেন আর্মেনীয় অ্যাপস্টলিক গির্জার অনেক অনুসারী। খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের বেশ কিছু পবিত্র স্থান আজারবাইজানের হাতে তুলে দেওয়ার অভিযোগ করছেন তারা।

গত মাসে আর্মেনিয়া কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, পাশিনিয়ানকে হত্যার একটি পরিকল্পনা তারা নস্যাৎ করেছে। সংঘাত চলাকালে যুদ্ধের ফ্রন্টে ছিলেন তার স্ত্রী ও ছেলে। তিনি দাবি করেছেন, কারাবাখের জন্য শান্তিচুক্তি ছাড়া আর্মেনিয়ার সামনে আর কোনও বিকল্প ছিল না।

সবুজ সিলেট/ এস মায়াজ আহমদ তালহা

  •