সুনামগ‌ঞ্জের আদালত থেকে পালিয়ে গেলেন স্ত্রী হত্যা মামলার আসামি

17

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

সুনামগঞ্জে আদালতে হাজিরা দিতে এসে পুলিশকে ফাঁকি দিয়ে পালিয়েছেন হত্যা মামলার এক আসামি। বুধবার বিকেলে সুনামগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের কোর্ট হাজত থেকে ২০১৭ সালের স্ত্রী হত্যা মামলার আসামি ইকবাল হোসেন (২৮) পালিয়ে যান।

তিনি দোয়ারাবাজার উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের উস্থিঙ্গেরগাঁও গ্রামের রমজান আলীর পুত্র। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত পা‌লিয়ে যাওয়া ইকবাল হো‌সেন ধর‌তে জেলার বি‌ভিন্ন স্থা‌নে অ‌ভিযান চালা‌চ্ছে পু‌লিশ।

পুলিশ জানায়, ২০১৭ সালে স্ত্রী মনুয়ারা বেগমকে হত্যা মামলার আসামি ছিলো ইকবাল হোসেন। বুধবার বিকেলে ওই মামলায় হাজিরা দেওয়ার জন্য সুনামগঞ্জ জেলা কারাগার থেকে সুনামগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতে হাজির করা হয়। তবে পুলিশের ধারণা আসামিদের আদালতে তুলার আগে নিরাপত্তায় থাকা পুলিশদের ফাঁকি দিয়ে পালিয়ে যায় সে। এছাড়া ২০১৭ সালে ১৩ জুন স্ত্রীকে হত্যার পরও সে পালিয়ে যায়। ঘটনার ২৫ দিন পর মোবাইল ট্র্যাকিং এর মাধ্যমে সিলেট শহরে কোতয়ালী থানা এলাকায় থেকে আটক করে কোতয়ালী থানার পুলিশ।

এদিকে পলাতক আসামি ইকবাল হোসেনকে খোঁজতে সুনামগঞ্জ জেলায় নিরাপত্তা জোরদার করেছে পুলিশ এবং বিভিন্ন স্থানে খোঁজতল্লাশি চালানো হচ্ছে।

এব্যাপারে জেল সুপার নূরশেদ আহমেদ ভূইয়া বলেন, আমরা প্রতিদিন আসামিদের কোর্ট পুলিশের কাছে আসামিদের দেই। পুলিশ আসামীদের কাভার্ড ভ্যানে করে কোর্ট নিয়ে যায়। পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে একজন আসামি মিসিং। আমি জেলা প্রশাসক মহোদয়কেও বিষয়টি অবগত করেছি।

পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আমাদের ধারণা আসামিকে কোর্টে তোলার আগে ভ্যান থেকে নামিয়ে আসামিদের এক জায়গায় নিয়ে যাওয়ার সময় সে পুলিশকে ফাঁকি দিয়ে পালিয়েছে। আমরা তাকে খুঁজতে জেলার বিভিন্নস্থানে তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

জেলা প্রশাসক মো. আব্দুল আহাদ বলেন, একজন আসামি আদালত থেকে পালিয়েছেন। আসামিকে খুঁজতে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

সবুজ সিলেট/১০ ডিসেম্বর / সেলিম হাসান

  •