১৮ বছর পর ভোট হচ্ছে পলাশবাড়ি পৌরসভায়

6

সবুজ সিলেট ডেস্ক::
সীমানা জটিলতায় প্রায় ১৮ বছর আটকে থাকার পর গাইবান্ধার পলাশবাড়ি পৌরসভা নির্বাচনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে আজ বৃহস্পতিবার। সকাল ৮টায় ১৬টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। প্রতিটি কেন্দ্রেই ইভিএম (ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন) পদ্ধতিতে এই ভোট নেওয়া হচ্ছে। ১৬ কেন্দ্রের ৯৪টি বুথে (কক্ষ) ভোট গ্রহণ একটানা চলবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত।

নির্বাচনে প্রথমবারের মতো পৌর এলাকার ৯টি ওর্য়াডের ৩১ হাজার ৬০২ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। করোনাকালে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ভোট অনুষ্ঠিত হচ্ছে।
সকাল ৮টা থেকে ১৬টি কেন্দ্রে একযোগে ভোট গ্রহণ শুরুর বিষয়টি নিশ্চিত করে পলাশবাড়ি উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার মো. শাহীনুর আলম জানান, ইভিএমে ভোট গ্রহণের জন্য ১৬ জন প্রিসাইডিং অফিসার, ৯৪ জন সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার ও ১৮৮ জন পোলিং অফিসার দায়িত্ব পালন করছেন। নির্বিঘ্নে ও উৎসব মুখর পরিবেশে কেন্দ্রে পৌঁছে ভোটারদের ভোটাধিকার প্রয়োগে সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট গ্রহণে কেন্দ্রেগুলোতে ভোটারদের উপস্থিতি বাড়বে বলে মনে করেন তিনি।
পলাশবাড়ি পৌরসভায় ভোট

সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন করতে নির্বাচনি এলাকায় সব ধরনের যানবাহন চলাচলে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। প্রতিটি কেন্দ্রে দায়িত্ব পালন করছেন অস্ত্রধারীসহ ছয় জন পুলিশ ও ১৪ জন আনসার ও গ্রাম পুলিশ। এছাড়া কেন্দ্রের বাইরে পুলিশের স্ট্রাইকিং ফোর্স, র‌্যাব ও বিজিবিসহ ছয় শতাধিক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যর পাশাপাশি ৯ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও দুই জন বিচারিক ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালনের কথা জানিয়েছেন পলাশবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাসুদুর রহমান।
পলাশবাড়ি পৌরসভায় ভোট

১৮ বছর পর দীর্ঘ প্রত্যাশীত এ নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকে আবু বকর প্রধান, দলেরই বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) নারিকেল গাছ প্রতীকে গোলাম সারোয়ার প্রধান বিপ্লব ও বিএনপির ধানের শীষ প্রতিকে আবুল কালাম আজাদসহ ছয় জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এছাড়া জাতীয় পার্টির লাঙল প্রতীকে মজিবুর রহমান, জগ প্রতীকে হাবিবুর রহমান ও কম্পিউটার প্রতীকে আমিনুল ইসলাম দুদু স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এছাড়া ৯ ওর্য়াডে কাউন্সিলর পদে লড়ছেন ৮৮ জন এবং সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে লড়ছেন ২২ প্রার্থী।
পলাশবাড়ি পৌরসভায় ভোট

প্রসঙ্গত, ২০০১ সালে পলাশবাড়ি পৌরসভা বাস্তবায়ন হলেও কিশোরগাড়ি, বরিশালসহ ৩ ইউনিয়নের সীমানা নিয়ে আইনি জটিলতায় আটকে যায় নির্বাচন। অবশেষে দীর্ঘ ১৮ বছর পর গত ৩ নভেম্বর পলাশবাড়ি পৌরসভায় প্রথমবারের মতো নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনার (ইসি)।

সবুজ সিলেট/১০ ডিসেম্বর/শামছুন নাহার রিমু

  •