ছাতকের জাঊয়া এলাকায় মহিলা কলেজ প্রতিষ্ঠার পরিকল্পনা রয়েছে: পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি

23

ছাতক প্রতিনিধি :: পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশজোরে চলছে উন্নয়নের মহাযজ্ঞ। পদ্মাসেতু নির্মাণের মধ্য দিয়ে উন্নয়ন বিরোধি সকল ষড়যন্ত্রের জবাব দেয়া হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর কন্যা দেশরতœ শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আছেন বলেই পদ্মাসেতুর মতো মহা প্রকল্প বাস্তবায়ন সম্ভব হয়েছে। তিনি বলেন, সারা দেশের ন্যায় সুনামগঞ্জেও উন্নয়ন কর্মকান্ড চলছে হর্স গতিতে। জাঊয়া এলাকায় একটি মহিলা কলেজ প্রতিষ্ঠার পরিকল্পনা রয়েছে। ছাতক থেকে সুনামগঞ্জ পর্যন্ত রেল লাইন সম্প্রসারণ করে মোহনগঞ্জের সাথে সংযুক্ত করা হবে। এসব উন্নয়ন কর্মকান্ডে বাধাগ্রস্থ করার চেষ্টা করছে দলের ভিতরের একটি মহল। ছাতক, দোয়ারা, গোবিন্দগঞ্জ, জাউয়া ও শান্তিগঞ্জকে ভিন্ন করে দেখা যাবে না। সুনামগঞ্জের সন্তান হিসেবে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে সুনামগঞ্জের উন্নয়ন করাই তার প্রত্যাশা। ঐক্যবদ্ধ থেকে জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন কার্যক্রমে সহযোগিতা করার জন্য তিনি সর্বস্থরের মানুষের প্রতি আহবান জানান।

শনিবার সকালে সুনামগঞ্জ যাওয়ার পথে উপজেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে আয়োজিত গোবিন্দগঞ্জ, জাউয়াসহ কয়েকটি পথ সভায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন। এর আগে ছাতক শহর থেকে সহশ্রাধিক মোটরসাইকেল ও শতাধিক গাড়ির বিশাল বহর নিয়ে সুনামগঞ্জের প্রবেশদ্বার গোবিন্দগঞ্জ সাদা পুলের মুখে ফুলের তোড়া দিয়ে পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান এমপিকে স্বাগত জানান, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের তথ্য ও গবেষনা সম্পাদক, কেন্দ্রিয় ছাত্রলীগের সাবেক নেতা শামীম আহমদ চৌধুরী। পরে গোবিন্দগঞ্জ থেকে বিশাল মোটর সাইকেল শোভা যাত্রা ও গাড়ি বহরের মাধ্যেমে মন্ত্রীকে নিয়ে যওয়া হয় সুনামগঞ্জে। এসম তিনি বেশ কয়েকটি পথ সভায় বক্তব্য রাখেন। এদিকে মন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে গত কয়েক দিনে গোবিন্দগঞ্জ থেকে বড়কাপন পর্যন্ত উপজেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে নির্মাণ করা হয় অর্ধ শতাধিক তোরণ।

গোন্দিগঞ্জ পথ সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের তথ্য ও গবেষনা সম্পাদক শামীম আহমদ চৌধুরী। এসময় উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক, সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদ সদস্য আজমল হোসেন সজল, দোয়ারা উপজেলা আওয়ামীলীগরে যুগ্ম আহবায়ক শামীমুল ইসলাম শামীম, স্বেচ্ছাসেবলীগের কেন্দ্রিয় সদস্য শাহীন আহমদ চৌধুরী, ইউপি চেয়ারম্যান দেওয়ান পীর আব্দুল খালেক রাজা, সাইফুল ইসলাম, সিলেট জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ সভাপতি নেতা আজির উদ্দিন, পৌর কাউন্সিলর আখলাকুল আম্বিয়া সোহাগ, দিলোয়ার হোসেন, লিয়াতক আলী, ধন মিয়া, সুদীপ দে, আওয়ামীলীগ নেতা কামাল উদ্দিন, এবাদুল হক এমাদ, আফিক আলী, ডাঃ রেদওয়ানুল হক আরজু, শাহীন তালুকদার, আব্দুল মমিন, রুহুল আমিন তালুকদার, মোতাহির আলী, নিজাম উদ্দিন, আনোয়ার হোসেন, রইছ আলী, যুক্তরাজ্য যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাহমুদ আলী, দোয়ারা উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক আবুল হোসেন, যুবলীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন চয়ন, ফজলে রাব্বী জনি, নজরুল চৌধুরী, দিলোয়ার হোসেন, লিটন মিয়া, জেলা ছাত্রলীগ নেতা মাহির চৌধুরী, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক জাহাঙ্গির আলম, ছাত্রলীগ নেতা জামায়েল আহমদ ফরহাদ, কামরুল ইসলাম চৌধুরী সজীব, রিয়াদ আহমদ চৌধুরী, রুবেল তালুকদার জনি, মিয়া হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।