সিলেটে যৌন হয়রানি নির্মূলকরণ নেটওয়ার্কের সমন্বয় সভা

4

সবুজ সিলেট ডেস্ক

সিলেট জেলা যৌন হয়রানি নির্মূলকরণ নেটওয়ার্কের ত্রৈমাসিক সমন্বয় সভা সোমবার (১৪ ডিসেম্বর) রাত সাড়ে ৭টায় নগরীর একটি হোটেলে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

জেলা যৌন হয়রানি নির্মূলকরণ নেটওয়ার্ক সিলেটে আহবায়ক ফারুক মাহমুদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় অংশ নেন সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ও নেটওয়ার্কের নির্বাহী সদস্য এমাদ উল্লাহ শহীদুল ইসলাম, বিভাগীয় সমন্বয়ক বেলা ও নেটওয়ার্কের কার্যনির্বাহী সদস্য এডভোকেট শাহ সাহেদা, নেটওয়ার্কের কার্যনির্বাহী সদস্য ও শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর তাহমিনা ইসলাম, এডভোকেট সৈয়দা শিরিন আক্তার, এডভোকেট জাকিয়া জালাল, নুসরাত হাসিনা, ব্র্যাকের ডিভিশনাল ম্যানেজার রিপন চন্দ্র মন্ডল, সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের নির্বাহী সদস্য সাংবাদিক ইউসুফ আলী, টুকের বাজার ইউপি সদস্য দিপালী গোয়ালা, সমাজকর্মী আলী আহসান হাবিব, সমাজকর্মী মোহাম্মদ শাহ আলম, ডা. এএএম শিহাব উদ্দিন, জেলা ব্যবস্থাপক কায়েম উদ্দিন, কর্মসূচি সংগঠক বিউটি রায় প্রমুখ।

সমন্বয় সভায় বক্তারা- নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে নানা কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করেন।

বক্তারা বলেন, নারী ও কন্যাশিশু নির্যাতনকারীদের রাজনৈতিক, সামাজিক ও প্রশাসনিক আশ্রয়-প্রশ্রয় দেওয়া বন্ধ করতে হবে। পারিবারিক সহিংসতা ও বাল্যবিবাহের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। নারীর বিষয়ে সমাজের পুরুষের বিশেষ করে তরুণ সমাজের যে প্রচলিত দৃষ্টিভঙ্গি এবং মানসিকতা, তা থেকে আধুনিক যুক্তিযুক্ত দৃষ্টিভঙ্গি অর্জনের জন্য সচেতনতার প্রয়োজন। সমাজের অর্ধেক জনগোষ্ঠী নারীসমাজকে সব ক্ষেত্রে সমান অংশগ্রহণের সুযোগ করে না দিলে এবং নারী ও কন্যাশিশুদের বিরুদ্ধে চলমান সহিংসতা বন্ধ না হলে সমাজ ও রাষ্ট্র এগিয়ে যেতে পারবে না। নারীর বিরুদ্ধে যৌন হয়রানি ও পারিবারিক সহিংসতা প্রতিরোধে যেসব আইন হয়েছে, সেগুলোর বাস্তব প্রয়োগ করতে হবে। তাতেই সমাজে নারী সহিংসতা কমে আসবে।

সবুজ সিলেট/১৫ ডিসেম্বর/ সেলিম হাসান