পাখির কলকাকলিতে মুখরিত বিশ্বনাথের ভোগশাইল গ্রাম

10

তজম্মুল আলী রাজু,বিশ্বনাথ

একটু উষ্ণতার খোঁজে বিশ্বনাথের ভোগশাইল গ্রামে ঝাঁকে-ঝাঁকে আসছে অতিথি পাখি। এসব পাখির ছন্দময় ডানা ঝাপটানোয় মুখর হয়ে ওঠে গোটা গ্রাম। গাছে গাছে বিচিত্র রঙ আর নানা প্রজাতির পাখির কলতান এখন সিলেট জেলার বিশ্বনাথ উপজেলার সদর ইউনিয়নের ভোগশাইল গ্রাম। শীতের শুরুতে এসব অতিথি পাখি অস্বিত্ব টিকিয়ে রাখতে ছুটে আসে হাওর, বিল ও জলাশয়ে।

বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়নের ভোগশাইল গ্রামে আসা অতিথি পাখির মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে শামুখ খোলা, রাজসরালি, কাস্তে চড়া, বালি হাঁস, পানকৌড়ি প্রমুখ। ভোগশাইল গ্রামে পাখি দেখতে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীসহ অনেকেই আসছেন। গাছে গাছে আশ্রয় নিয়েছে অতিথি পাখি। পাখির কলকাকলিতে মুখরিত ভোগশাইল এলাকায় আসা ফরহাদ মিয়া বলেন, পাখির কিচির-মিচির শব্দ, ডানা ঝাপটানো, গাছের এক ডাল থেকে অন্য ডালে উড়ে যাওয়া, পানিতে ডুব সাঁতার খেলা দেখা যেন প্রকৃতিতে একেবারে হারিয়ে যাওয়া। প্রকৃতির এ দৃশ্য যারা দেখেননি তারা বুঝবেন না এর আনন্দ। পাখিদের অবিরাম খুনসুটি, ডানা ঝাপটে দলবেঁধে উড়ে চলা আর ডুব সাঁতার দেখতে দেখতে কখন যে সন্ধ্যা নামে তা টেরই পাওয়া যায় না।’ ভোগশাইল গ্রামের সুহেল আহমদ জানান, গত কয়েক দিন ধরে অতিথি পাখি আমাদের গ্রামে অবস্থান নিয়েছে। আমরা স্থানীয় মসজিদে মাইকিং করে সবাইকে জানিয়ে দিয়েছি পাখি শিকার করা কিংবা ধরা যাবেনা। তিনি বলেন, পাখি হচ্ছে আমাদের সম্পদ। বিশ্বনাথ উপজেলা নির্বাহী অফিসার বর্ণালী পাল অতিথি পাখিকে নিজেদের সম্পদ উল্লেখ করে বলেন, এসব অতিথি পাখি রক্ষার জন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সবুজ সিলেট/ডিসেম্বর ১৭/ হাসান