হবিগঞ্জে কিশোরীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে মেম্বারকে উত্তমমধ্যম

5

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি ::
কিশোরীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে মেম্বারকে উত্তমমধ্যম
হবিগঞ্জ শহরের উমেদনগরে কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে সাহাব উদ্দিন (৪০) নামের এক ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) সদস্যকে আটক করেছে জনতা। পরে তাকে মারধর করে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে।

সাহাব উদ্দিন কিশোরগঞ্জ জেলার ইটনা উপজেলার শান্তিপুর গ্রামের মৃত কালা মিয়ার ছেলে ও মিরকা ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ড মেম্বার।

শুক্রবার (১৮ ডিসেম্বর) রাত ৯টার দিকে উমেদনগর এলাকা এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, ইটনা গ্রামের সেলিম মিয়ার মা সুফিয়া বেগম ও তার বোন আকলিমা উমেদনগর এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করছেন। কয়েকদিন আগে সেলিমের মেয়ে (১৩) ফুফুর বাসায় তার দাদিকে নিয়ে বেড়াতে আসে। শুক্রবার সন্ধ্যায় সাহাব উদ্দিন তাদের বাসায় আসেন। তিনি ৫০০ টাকা দিয়ে কিশোরীর দাদি সুফিয়া বেগমকে বিস্কুট, সিগারেট এবং জুস আনতে দোকানে পাঠান। এ সুযোগে মেম্বার ঘরে থাকা ওই কিশোরীকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা চালান। কিশোরীর চিৎকারে স্থানীয় লোকজন ছুটে এসে মেম্বারকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ এসে তাকে থানায় নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় কিশোরীর ফুফু আকলিমা বাদী হয়ে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুক আলী জানান, ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে মেম্বারকে আটক করা হয়েছে। শনিবার ভিকটিমের স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে আদালতে জবানবন্দির জন্য পাঠানো হয়। আটক মেম্বারকেও আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সবুজ সিলেট/ এস মায়াজ আহমদ তালহা