জামালগঞ্জে গৃহহীনদের ঘর নিমার্ণে অভিরাম ছুটে চলেছে উপজেলা প্রশাসন

45

মোঃ ওয়ালী উল্লাহ সরকার,জামালগঞ্জ ::
জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ও প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের সকল গৃহহীন মানুষের নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ঘর নিমার্ণ করে দিতে অভিরাম ছুটে চলেছে উপজেলা প্রশাসন।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকীতে মুজিব বর্ষ পালন উপলক্ষে সরকারের বৃহৎ কর্মসূচীর অংশ হিসাবে দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রান মন্ত্রনালয়ের অধিনে সারা দেশে ৮ লাশ ৮২ হাজার ৩৩ টি গৃহহীন অসহায় পরিবারের মাঝে জামালগঞ্জ উপজেলায় ১০০টি গৃহহীন অসহায় পরিবারকে শনাক্ত করে তাদের সকলকে ঘর বরাদ্দের অনুমতি হয়েছে। প্রথম পর্যায়ে ৫০টি পরিবারকে ঘর প্রদান করা হয়েছে। প্রকল্পটি সুষ্ঠ বাস্তবায়নে কাজ করে যাচ্ছে জামালগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন প্রতিদিন নানা কর্মব্যস্ততার মাঝেও উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিশ্বজিত দেব, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ রেদুয়ানুল হালিম, উপজেলা প্রকল্প ব াস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ এরশাদ হোসেন সকাল থেকে সন্ধ্যা অবধি উপজেলার একপ্রান্ত থেকে অপর প্রান্ত পর্যন্ত ছুটে চলেছেন। সরকারী বাসযোগ্য অসহায় দরিদ্র গৃহহীনদের স্থান ও গৃহ নির্মাণে ।

প্রথম থেকে মানবিকতার সাথে কাজ করে চলা উপজেলা প্রশাসনের সর্বোচ্চ পর্যায়ের তিন তরুন কর্মকর্তা সরকারী নির্দেশনা মোতাবেক কাজ করে যাচ্ছেন।
প্রকল্পের কাজে কোথাও কোন সমস্যা হলে ছুটে চলেছেন তারা কখনো কখনো তাদের নিজেদেরকে সার্ভেয়ারদের ফিতা, খুটি কিংবা শ্রমিকদের সাথে উপকরণ সর্বরাহের কাজ করতে দেখা যায়। অসহায় ও গৃহহীনদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে উপজেলা প্রশাসনের এমন আন্তরিকতায় বিভিন্ন মহলে প্রশংসিত হচ্ছে।

ভীমখালী ইউনিয়নের গোলামীপুর গ্রামে ৮টি পরিবার, বেহেলী ইউনিয়নের বেহেলী নদীর পারে ১৯টি পরিবার, একই ইউনিয়নের রহিমাপুর (বাগহাটি) ২৮টি পরিবার, জামালগঞ্জ উত্তর ইউনিয়নের শরীফপুর ৩৩টি পরিবারের গৃহনির্মাণের ভূমি জরিপ ও মাটি ভরাটের কাজ শেষে ঘরের প্রায় অর্ধেক কাজ সম্পন্ন হয়েছে। ভূমি অফিসের সার্ভেয়ার আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন স্যারের নির্দেশে খাস জমি নির্ধারনে সার্বক্ষনিক জরিপ কাজ করে যাচ্ছি। উপজেলা জেলায় জায়গার কোন অভাব নেই। কিন্তু বাস্তবে দেখা যায় খাস জমিতে অনেকে অবৈধ ভাবে দখল করে আছে। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ রেদুয়ানুল হালিম জানান জামালগঞ্জে ১০০টি ঘরের বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

প্রথামিক ভাবে ৮৮টি ঘরের জায়গা নির্ধারণ করে ঘর তৈরীর কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। দ্রুত কাজ সম্পাদনের জন্য দিন রাত চেষ্টা করে যাচ্ছি। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশ্বজিত দেব বলেন বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরনে সরকারের মহতি প্রকল্পে উপজেলার সর্বস্তরের গৃহহীনদের ঘর নিমার্ণ করে দিতে আপ্রান চেষ্টা করছি। এতদিন তারা রাস্তার পাশে অন্যের বাড়ীতে ক্ষুপরি কিংবা ভাড়া বাসায় বসবাস করতেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার মানবিকতায় অসহায় গৃহহীনরা ঘর পাচ্ছেন। তারা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্য প্রাণ খোলে দুয়া করছেন।

সবুজ সিলেট / এস মায়াজ আহমদ তালহা