ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদকের বিরুদ্ধে ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র লঙ্ঘনের অভিযোগ

14

 

সবুজ সিলেট ডেস্ক :: গঠনতন্ত্র লঙ্ঘন করে জরুরি সভা আহ্বান করার অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় এবং সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের বিরুদ্ধে। রোববার বিকেলে সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে দলীয় কার্যালয়ে এ সভা আহ্বান করা হয়। এ সভা আহ্বানে যথাযথভাবে গঠনতন্ত্র অনুসরণ করা হয়নি বলে অভিযোগ করেছেন সংগঠনটির একাধিক নেতা। এছাড়া সভায় এই শীর্ষ দুই নেতা প্রায় এক ঘণ্টা দেরি করে উপস্থিত হয়েছেন বলেও অভিযোগ তাদের।

জানা যায়, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় উপ-দপ্তর সম্পাদক নাজির আহমেদ শনিবার রাত সোয়া ২টার দিকে জরুরি সভা আহ্বান করা হয়েছে জানিয়ে কেন্দ্রীয় নেতাদের ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে বিজ্ঞপ্তি পাঠান। এরপর রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কেন্দ্রীয় নেতাদের মুঠোফোনে সভায় উপস্থিত থাকার আহ্বান জানিয়ে আবারও বিজ্ঞপ্তি পাঠানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, রোববার বিকেল ৪টায় দলীয় কার্যালয় রাজধানীর ২৩ বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হবে। তবে গঠনতন্ত্র লঙ্ঘনের অভিযোগ তুলে অধিকাংশ নেতা এ আহ্বানে সাড়া দেননি।

ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্রের ১৫ এর (গ) ধারায় বলা হয়েছে, ‘জরুরি অবস্থায় ২৪ ঘণ্টা এবং সাধারণ অবস্থায় সাত দিনের নোটিশে কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সভা হবে। জরুরি অবস্থায় এক-চতুর্থাংশ এবং সাধারণ অবস্থায় এক-তৃতীয়াংশের উপস্থিতিতে কোরাম হবে। কেন্দ্রীয় সম্পাদকমণ্ডলীর সভা জরুরি অবস্থায় ২৪ ঘণ্টা এবং সাধারণ অবস্থায় সাত দিনের নোটিশে অনুষ্ঠিত হবে। জরুরি অবস্থায় এক-চতুর্থাংশ এবং সাধারণ অবস্থায় এক-তৃতীয়াংশের উপস্থিতিতে কোরাম হবে।’

এ সভা ঠিক কোন বিষয়ে হবে সেটিও উল্লেখ করা হয়নি বলে অভিযোগ করেন কেন্দ্রীয় নেতারা। নাম প্রকাশ না করার শর্তে কেন্দ্রীয় কমিটির একাধিক নেতা জানান, তাদের এ সভার কথা অনেক দেরিতে জানানো হয়েছে। তা ছাড়া জরুরি সভা কী নিয়ে হবে, সেটাও বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়নি।

এ বিষয়ে নাহিয়ান খান বলেন, ‘কভিড-১৯-এর কারণে সভাটি স্বল্প পরিসরে হয়েছে। যেহেতু এটা আমাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়, তাই এটাকে সহজভাবে দেখাটাই সমীচীন হবে। যারা উপস্থিত হতে পারেননি, তাদের সভার সিদ্ধান্ত সম্পর্কে জানানো হবে।’ তিনি বলেন, সামনে আরও সভা হবে। তখন আগেভাগেই সেটা সম্পর্কে সবাইকে জানানো হবে।