পাকিস্তানে ভাঙা মন্দির আশে পাশের ক্ষতিগ্রস্ত ঘরবাড়ি তৈরি করে দেবে প্রাদেশিক সরকার

4

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখুয়ার ভাঙা মন্দিরটি পুনর্নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে দেশটির প্রাদেশিক সরকার। বুধবার স্থানীয় ধর্মীয় নেতাদের উস্কানিতে একদল অত্যুৎসাহী লোক পুরনো মন্দিরটিতে আগুন ধরিয়ে দেয় এবং এর দেয়াল ভেঙে দেয়।

এ ঘটনায় এ পর্যন্ত ৪৫ জনকে আটক করা হয়েছে। এদের মধ্যে রয়েছে বেশ কয়েকজন ধর্মীয় নেতাও। প্রাদেশিক সরকারের তথ্যমন্ত্রী কামরান বানগাশ বলেন জানান, ধ্বংসপ্রাপ্ত মন্দিরটি আমাদের সরকার নিজের খরচে তৈরি করে দেবে। খবর এএফপি, আল জাজিরার।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ওই ন্যক্কারজনক ঘটনার জন্য আমাদের সরকার অত্যন্ত মর্মাহত। প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান মন্দিরটি আবার তৈরি করে দেয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন। এর আশে পাশে যেসব ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, সেগুলোও ফের সংস্কার করা হবে।

খাইবার পাখতুনখুয়ার রাজধানী পেশোয়ার থেকে ৬২ মাইল দক্ষিণ-পূর্বের কারাক শহরের শ্রী পরমহংসজি মহারাজ সমাধি মন্দিরটিতে বুধবার এক হাজারের বেশি উগ্র জনতা হামলা চালায়।

তথ্যমন্ত্রী বানগাশ জানান, পুনর্নির্মাণের কাজ শিগগিরই শুরু হবে। ঘটনাস্থলে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের মোতায়েন করা হয়েছে।

জেলা পুলিশ প্রধান ইরফানুল্লাহ খান জানিয়েছেন, ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার দায়ে ধর্মীয় নেতাসহ ৪৫ জনকে এ পর্যন্ত আটক করা হয়েছে। এদের মধ্যে পাকিস্তানের অন্যতম বৃহত্তম ইসলামিক দল জমিয়ত উলেমায়ে ইসলামের জেলা নেতারাও রয়েছেন।