ভাঙচুর মামলায় জামায়াতের ৫ নেতা কারাগারে

13

সবুজ সিলেট ডেস্ক :: ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুলিশ সদস্যদের মারধর, গাড়ি ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের মামলায় জামায়াতে ইসলামীর বর্তমান ও সাবেক পাঁচ নেতাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

রোববার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালতের বিচারক মো. মাসুদ পারভেজ এ আদেশ দেন।

জামায়াত নেতারা হলেন- কাজী নজরুল ইসলাম খাদেম, গোলাম ফারুক, মো. জাহিদুল ইসলাম, রুস্তম আলী ও মো. জাহাঙ্গীর আলম ইকবাল।

বিকেলে জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার (ডিএসবি) পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানা গেছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২০১২ সালের ৪ ডিসেম্বর সকালে জেলা পুলিশের একটি ট্রাক পুলিশ লাইন্স থেকে পুলিশ সদস্যদের জন্য নাস্তা নিয়ে কাউতলি যাচ্ছিলো। পথিমধ্যে শহরের পীরবাড়ি এলাকায় দুষ্কৃতকারীরা গাড়িতে থাকা পুলিশ সদস্যদের মারধর, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করেন। এ ঘটনায় ওইদিনই ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানায় মামলা দায়ের করা হয়।

গত ১০ অক্টোবর ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালতের বিচারক মো. মাসুদ পারভেজ মামলার বিচারিক কার্যক্রম শেষে এজাহারনামীয় ও ঘটনায় জড়িত পলাতক আসামির প্রত্যেককে দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও দুই হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেন। অনাদায়ে আরো এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন আদালত।

রোববার আসামি কাজী নজরুল ইসলাম খাদেম, গোলাম ফারুক, মো. জাহিদুল ইসলাম, রুস্তম আলী ও মো. জাহাঙ্গীর আলম ইকবাল আদালতে আত্মসমর্পণ করলে বিচারক তাদেরকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এই মামলার ২১ আসামির মধ্যে ১৬ জন ইতোপূর্বে আদালতে আত্মসমর্পণ করলে বিচারক তাদেরকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

সবুজ সিলেট/ ০৩ জানুয়ারি/ এহিয়া