বিশ্বনাথে প্রধানমন্ত্রীর উপহার : জমিসহ ঘর পেল ১২০ পরিবার

15


বিশ্বনাথ প্রতিনিধি ::
মুজিব বর্ষ উপলক্ষ্যে বিশ্বনাথে ভূমি ও গৃহহীন ১২০ পরিবার পেল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেয়া জমিসহ ঘর উপহার। শনিবার সকাল ১০টায় উপজেলা বিআরডিবি হলরুমে আনুষ্ঠানিকভাবে ওই পরিবারগুলোর হাতে জমিসহ ঘরের দলিল তুলে দেয়া হয়। এর আগে সকাল সাড়ে ১০টায় গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ‘জমি ও গৃহ প্রদান’ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিশ্বনাথে জমিসহ ঘর উপহার পাওয়া ১২০জনের মধ্যে বীর মুক্তিযোদ্ধা ১জন, প্রতিবন্ধি ১জন, বিধবা ১৫জন, স্বামী পরিত্যক্তা ১৩জন, ভিক্ষুক ৩জন, শ্রমিক ও কৃষক পেশাজীবী ৮৭জন।
প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাথে সরাসরি সংযুক্ত ভূমিহীন ও গৃহহীন জমি ও গৃহ প্রদান অনুষ্ঠানের পূর্বে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) বর্ণালী পালের সঞ্চালনায় অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা নির্বাহী প্রকৌশলী রিপন কুমার দাশ, জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য ও বিশ্বনাথ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এস.এম নুনু মিয়া, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) ফারুক আহমদ, বিশ^নাথ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শামীম মুসা, বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছয়ফুল হক, দৌলতপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আমির আলী, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার-পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. আবদুর রহমান মুসা, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ওয়াহিদ আলী, বিশ্বনাথ প্রেস ক্লাবের সভাপতি কাজী মুহাম্মদ জামাল উদ্দিন।
সভায় বক্তারা বলেন, সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গঠনে এটি আরেক ধাপ। বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। পৃথিবী অবাক বিস্ময়ে তাকিয়ে আছে। গৃহহীনদের মাঝে ঘর ও জমি বিতরণ করে প্রধানমন্ত্রী বিশ্বে একটি নজিরবিহীন ইতিহাস সৃষ্টি করলেন।
্এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা গণপূর্ত বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশলী কায়েদে আজম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা হাবিবুর রহমান, উপজেলা প্রকৌশলী আবু সাঈদ, থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রমাপ্রসাদ চক্রবর্তী, রামপাশা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ আলমগীর, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সমীর কান্তি দেব, প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মহিউদ্দিন আহমদ, খাদ্য কর্মকর্তা মনধন চন্দ্র দাস, পল্লী বিদ্যুতের বিশ^নাথ জোনাল অফিসের ডিজিএম ছাইফুল ইসলাম, বিআরডিবি চেয়ারম্যান মহব্বত আলী জাহান, আওয়ামী লীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, বিশ্বনাথ সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আব্বাস হোসেন ইমরান, বিশ্বনাথ প্রেস ক্লাবের সদস্য নুর উদ্দিন, সাংবাদিক কামাল মুন্না, বদরুল ইসলাম মহসিন প্রমুখ। সভায় উপকারভোগীদের মধ্যে শারীরিক প্রতিবন্ধী ভিক্ষুক জাহির হোসেন আবেগ আপ্লুত হয়ে বলেন, আমি কি বলব, ভাষা হারিয়ে ফেলেছি। জীবনে কখনো ভাবিনি আমার মত গরীব একটি পাকা ঘর পাব। প্রধানমন্ত্রীর এই উপহার পেয়ে আমি ধন্য। প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ এবং তার দীর্ঘায়ূ ও সুস্বাস্থ্য কামনা করছি।

  •