ঢাকার পরীক্ষায়ও সেই ২৫ প্রবাসীর করোনা নেগেটিভ, ফিরিলেন বাড়ি

14

সবুজ সিলেট ডেস্ক::
যুক্তরাজ্য থেকে দেশে আসা সেই ২৫ প্রবাসীর ঢাকার পরীক্ষায়ও করোনা নেগেটিভ এসেছে। এর আগে গত মঙ্গলবার সিলেটে পুণঃপরীক্ষায়ও তাদের করোনা শনাক্তকরণ পরীক্ষার ফলাফল নেগেটিভ আসে। এদিকে দ্বিতীয়বারের মতো করোনা শনাক্তকরণ পরীক্ষার ফলাফল নেগেটিভ আসায় তাদেরকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। তারা সকলেই নিজ নিজ বাসায় অবস্থা করছেন।

বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) সকালে এই তথ্য নিশ্চিত করেছে সিলেট সিভিল সার্জন কার্যালয়ের একটি সূত্র। তবে এ ব্যাপারে সিলেটের সিভিল সার্জন ডা. প্রেমানন্দ মণ্ডল কোনো বক্তব্য দিতে রাজি হননি।

এর আগে গত ২১ জানুয়ারি যুক্তরাজ্য থেকে সিলেট আসেন ১৫৭ প্রবাসী। সিলেটে আসার সেনাবাহিনী ও পুলিশের তত্ত্বাবধানে তাদেরকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে বিভিন্ন হোটেলে রাখা হয়। নিয়ম অনুযায়ী, তাদের ৪ দিন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন থেকে ছেড়ে দিতে রোববার নমুনা সংগ্রহ করে সিলেটে করোনা পরীক্ষায় নিযুক্ত বেসরকারি সংস্থা সীমান্তিকের ল্যাবে পরীক্ষা করানো হয়। যাতে গত সোমবার আসা রিপোর্টে তাদের ২৮ জন করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়।

একদিন পর মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) এই ২৮ জনের নমুনা শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে পুণঃপরীক্ষায় ২৫ জনেরই করোনা নেগেটিভ আসে। দুই ল্যাবের নমুনা পরীক্ষায় রিপোর্টে কেনো এতোটা তারতম্য? এই ব্যাপার আরও নিশ্চিত হতে মঙ্গলবার রাতে ফের তাদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয় ঢাকায়। দুইদিন পর ঢাকা থেকেও তাদের নমুনা পরীক্ষার ফল নেগেটিভ এলো।

এদিকে আগের একজনসহ বাকি তিনজনের করোনা পরীক্ষার ফলাফল পজিটিভ রয়েছে। তারা বর্তমানে সিলেটের খাদিমপাড়াস্থ ৩১ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। তাদের তিনবারই করোনা পজিটিভ আসে। এদিকে এই তিন জনের নমুনার সাথে যুক্তরাজ্যে করোনার নতুন স্ট্রেইনের মিল আছে কিনা তা পরীক্ষা করা হচ্ছে বলে স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে।

উল্লেখ্য, গত ২১ জানুয়ারি যুক্তরাজ্য থেকে বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইট নং বিজি-২০২’তে সিলেট ওসমানী বিমানবন্দরে আসেন আসেন ১৫৭ প্রবাসী। সিলেটে আসার সেনাবাহিনী ও পুলিশের তত্ত্বাবধানে তাদেরকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে বিভিন্ন হোটেলে রাখা হয়। দেশে আসার পর নমুনা পরীক্ষায় তাদের করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়।

নিয়ম অনুসারে, তাদের ৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকার কথা। এ হিসেবে সোমবার তাদেরকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন থেকে ছেড়ে দিতে গত রোববার নমুনা সংগ্রহ করে সিলেটে করোনা পরীক্ষায় নিযুক্ত বেসরকারি সংস্থা সীমান্তিকের ল্যাবে পরীক্ষা করানো হয়। সোমবার আসা রিপোর্টে তাদের ২৮ জন করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়। এর আগে আরও একজনের করোনা পজিটিভ আসে।

এদিকে তাদের করোনা পজিটিভ আসার পর তাদেরকে সিলেটের খাদিমপাড়াস্থ ৩১ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়। তবে তাদের কারোরই তেমন কোনো উপসর্গ নেই বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন।

যুক্তরাজ্যে মহামারি করোনাভাইরাসের নতুন স্ট্রেইন শনাক্ত হওয়ার পর থেকে বিশ্বের সঙ্গে দেশটির যোগাযোগ প্রায় বিচ্ছিন্ন। সেখানে করোনাভাইরাসের নতুন স্ট্রেইন ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ায় এ সতর্কতা নেয়া হয়। কিন্তু বাংলাদেশের সঙ্গে লন্ডনের আকাশপথে যোগাযোগ এখনও রয়েছে। গত ৪ জানুয়ারি থেকে আজ বৃহস্পতিবার পর্যন্ত মোট ৬৯৪ জন যাত্রী যুক্তরাজ্য থেকে সিলেটে এসেছেন। প্রতি সপ্তাহে সোম ও বৃহস্পতিবার বিমানের ফ্লাইট লন্ডন-সিলেট রুটে যাতায়ত করে।

  •