বিশ্বনাথে দেবরের হামলায় বিধবা গুরুতর : হাসপাতালে ভর্তি

20

বিশ্বনাথে প্র্যাস্টিজ পাংচার ইস্যু নিয়ে ভাবির ওপর হামলা চালিয়েছেন দেবর। এতে গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালের বেডে কাতরাচ্ছেন বিধবা ভাবি রেজিয়া বেগম(৪২)। শুক্রবার বিকেল ৫টায় উপজেলার বিশ্বনাথ ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, স্বামী হারা রেজিয়া বেগম ১০ বছরের ছেলে মাসুদকে নিয়ে মানবেতর দিনযাপন করছেন।

শুক্রবার পাশের বাড়ির এক ব্যক্তি দয়াপরবশ হয়ে তাকে কিছু চাল দান করলে প্র্যাস্টিজে লাগে দেবর ছালামত আলীর(৪৫)। তিনি ও তার স্ত্রী এক জোট হয়ে রেজিয়ার ওপর লাঠি দিয়ে উপুর্যপুরি আঘাত করেন।

চাল আনাতে তাদের মান সম্মান চলে যাচ্ছে বলে রেজিয়াকে গালমন্দও করেন। দেবর ও জা’র হামলায় রেজিয়ার নাক ফেটে গিয়ে প্রচুর রক্ত করণ হয়। একটি হাতও ভেঙে যায় এবং মাথায় নিলা ফোলা জখম হয়ে রক্ত জমাট বাঁধে।

 

স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। তার অবস্থা গুরুতর বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। তিনি এখন হাসপাতালের ৪র্থ তলার ৬নং ওয়ার্ডে (মহিলা সার্জারী ওয়ার্ড) চিকিৎসাধীন আছেন।

 

এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে এবং ন্যায় বিচার পেতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি আকুল আবেদন জানায় রেজিয়ার ছেলে শিশু মাসুদ।  প্রেস-বিজ্ঞপ্তি।

  •