মেক্সিকোতে নারী অধিকার কর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ

3

আন্তর্জাতিক ডেস্ক::
মেক্সিকোতে পুলিশ ও নারী অধিকার কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। গতকাল সোমবার দেশটির রাজধানীর প্রধান শহর জোকালোতে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে এক পদযাত্রায় এ ঘটনা ঘটে।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মেক্সিকোতে নারী হত্যা ও লিঙ্গভিত্তিক সহিংসতা বন্ধে দেশটির সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে পদযাত্রা করে নারী অধিকার কর্মীরা।

গতকাল সোমবার প্রায় ১ হাজার নারী এবং কয়েকজন তাদের মেয়েকে নিয়ে পদযাত্রায় অংশগ্রহণ করেন। এ সময় একটি মেয়েকে ‘তারা আমাকে হত্যা করেনি, কিন্তু আমি ভয়ে থাকি’ লেখা সংবলিত ব্যানার হাতে দেখা যায়। এক পর্যায়ে ভিড়ের মধ্য থেকে কয়েকজন হাতুড়ি ও লাঠি নিয়ে ন্যাশনাল প্লাজার আশপাশের কয়েকটি ধাতব লোহার বেড়া টেনে নামিয়ে ফেলেন।

বিক্ষোভকারীদের পদযাত্রার সামনে ব্যারিকেড দেয় পুলিশ। পরে ন্যাশনাল প্লাজা এলাকায় বিক্ষোভকারীদের প্রবেশ বন্ধে কয়েকজন পুলিশ ঢাল ব্যবহার করেন।

দেশটির এক স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিক্ষোভকারীরা কয়েকজন পুলিশ সদস্যের ঢালে আগুন ধরিয়ে দেন। যদিও সেই আগুন তাৎক্ষণিকভাবে নেভানো হয়। বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ টিয়ার গ্যাস ছোড়ে। এতে অন্তত ১৫ জন পুলিশ কর্মকর্তা ও চারজন বিক্ষোভকারী আহত হয়েছে।

মেক্সিকো সিটিতে নারী অধিকার কর্মী ও পুলিশের মধ্যে প্রায়ই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। নারী অধিকার কর্মীদের মতে, সরকারের মনোযোগ আকর্ষণের এটাই একমাত্র উপায়। মেক্সিকোতে নারী নির্যাতনের ঘটনাগুলো উপেক্ষা করায় দেশটির প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ ওব্রাদরকে দুষছেন নারী অধিকার কর্মীরা। দেশটির সরকারি পরিসংখ্যান বলছে, ২০২০ সালে মেক্সিকোতে অন্তত ৯৩৯ জন নারী সহিংসতার শিকার হয়েছেন।

  •